আমাজনে পাওয়া করোনার নতুন ধরন তিনগুন সংক্রামক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ব্রাজিলের আমাজনে করোনাভাইরাসের যে নতুন ধরন পাওয়া গেছে তা তিনগুন বেশি সংক্রামক বলে জানিয়েছেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী এদুয়ার্দো পাজুয়েল্লো। তবে ভ্যাকসিন এই নতুন ধরনের বিরুদ্ধেও কার্যকর বলে দাবি করেন তিনি, যদিও দাবির পক্ষে তিনি কোনো প্রমাণ হাজির করেননি। খবর আল জাজিরার।

সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউতে আমাজন বন সংলগ্ন শহর মানাউসে করোনার নতুন ধরন ব্যাপক মাত্রায় ছড়িয়ে পড়ার পর স্বাস্থ্যমন্ত্রী আশ্বস্ত করার চেষ্টা করেন যে, সাম্প্রতিক মাসে সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়া অপ্রত্যাশিত হলেও নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এ বছরের জুনের মধ্যে ব্রাজিলের অর্ধেক জনগণকে ভ্যাকসিন দেয়া সম্পন্ন হবে এবং বাকিদের দেয়া শেষ হবে বছরের শেষ নাগাদ।

ব্রাজিল এখনো তাদের জনসংখ্যার অর্ধেকের জন্যও ভ্যাকসিনের সরবরাহ নিশ্চিত করতে পারেনি। তিন সপ্তাহ আগে চীনের সিনোভ্যাক ও ব্রিটেনের অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনের মাধ্যমে দেশটি ভ্যাকসিন কার্যক্রম শুরু করেছে।

পাজুয়েল্লো বলেন, ‘ঈশ্বরকে ধন্যবাদ, বিশ্লেষণ থেকে আমরা পরিষ্কার খবর পেয়েছি যে নতুন ধরনের বিরুদ্ধে ভ্যাকসিনগুলো কার্যকর। তবে এটি (ধরনটি) আরও সংক্রামক। আমাদের বিশ্লেষণ মতে, এটি তিনগুন বেশি সংক্রামক।’

তবে মানাউসে পাওয়া ভাইরাসের নতুন ধরনের বিরুদ্ধে এসব ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা কীভাবে বিশ্লেষণ করা হয়েছে সে ব্যাপারে কোনো ব্যাখ্যা দেননি পাজুয়েল্লো। ব্রাজিলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ও এ বিষয়ে কোনো তথ্য দেয়নি। তথ্যের জন্য অনুরোধ করে কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি।

চীনের সিনোভ্যাকের সঙ্গে যৌথভাবে ভ্যাকসিনের পরীক্ষা ও উৎপাদন করেছে সাওপাওলোর বুটানটান ইনস্টিটিউট। এক বিবৃতিতে তারা বলেছে, মানাউসে পাওয়া ভাইরাসের ধরন নিয়ে ইনস্টিটিউট গবেষণা শুরু করেছে এবং দুই সপ্তাহের মধ্যে কোনো উপসংহারে পৌঁছানো সম্ভব নয়।

আমাজন রেইনফরেস্টের গহীনে অবস্থিত শহর মানাউস করোনার দ্বিতীয় ঢেউতে মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এর ফলে শহরের হাসপাতালগুলোর জরুরি সেবা প্রায় ভেঙে পড়ার উপক্রম হয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *